আজ ২৩শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৬ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

চলমান আছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা রেডক্রিসেন্ট ইউনিট এর করোনা ভাইরাস সচেতনতা মূলক কার্যক্রম

সানিউর রহমান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধি :

কোভিড ১৯ এর সংক্রমণ দিন দিন বেড়েই চলছে তার সাথে বাড়ছে লকডাউনের মাত্রা, দেশ জুড়ে শুধু আতঙ্ক আর আতঙ্ক এই আতঙ্কের মাঝেও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মাঠে আছে বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ইউনিট।

গত ২৪ মার্চ রোজ মঙ্গলবার থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা রেডক্রিসেন্ট ইউনিট এর উদ্যোগে করোনা ভাইরাস নিয়ে বিভিন্ন সচেতনতা মূলক কর্মসূচি চলমান আছে।

যুব প্রধান ফয়সাল উদ্দিন ভূঁইয়ার সার্ভিস তত্ত্বাবধায়নে ও উপযুব প্রধান -১ সাহিদুল ইসলাম অপুর নেত্রীত্বে উক্ত কার্যক্রমটি চলমান আছে।

গত ২৪ মার্চ মঙ্গলবার থেকে জনসচেতনতা মূলক কার্যক্রমের মধ্যে ছিল সচেতনতা মূলক লিফট , মাক্স , হেন্ড সেনিটাইজার, হেন্ড গ্লাভস ইত্যাদি বিতরণ ও জীবাণু নাশক স্প্রে প্রদান।

জেলা রেডক্রিসেন্ট ইউনিট এর ইউনিট লেবেল অফিসার জনাব রাকিবুল হাসান জানান চলমান এই কার্যক্রম তারা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিটি উপজেলায় বহাল রেখেছে। এর মধ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার বিভিন্ন জনবহুল স্থান ও জেলা সদর হসপিটাল প্রতিনিয়ত কার্যক্রম বহাল রেখেছে। বিজয়নগর উপজেলার বিভিন্ন স্থান ও উপজেলা সাস্থ কমপ্লেক্স, আখাউড়া উপজেলার বিভিন্ন স্থান ও উপজেলা সাস্থ কমপ্লেক্সে ও কার্যক্রম চলছে। তিনি আরো বলেন করোনা ভাইরাস এর মতো এত বড় একটি মহামারীকে সামান্য বলে বসে থাকলে চলবে না প্রত্যেক মানুষেরই উচিত নিজ নিজ অবস্থান থেকে সচেতন হওয়া।
যুবপ্রধান ফয়সাল উদ্দিন ভূঁইয়া বলেন করোনা মোকাবেলায় আমাদের কার্যক্রম চলমান আছে, ভবিষ্যতে যত ঝুঁকিই আসুক না কেন বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি কর্তৃক নির্দেশনা মোতাবেক আমরা আমাদের জেলায় এই কালক্রম চালিয়ে যাব।
উপ-যুব প্রধান -১ সাহিদুল ইসলাম অপু বলেন যুবরা হচ্ছে একটি দেশের প্রাণ আর আমরা এই যুবরা আমাদের দেশের সকল পরিস্থিতি মোকাবেলায় আমরা প্রস্তুত আছি। এবং বিশেষ ভাবে ধন্যবাদ জানিয়েছে এই কার্যক্রমের সাথে জড়িত সকল যুব স্বেচ্ছাসেবীদের।
উল্লেক্ষ্য যে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় প্রায় অর্ধশতাধিক যুব স্বেচ্ছাসেবক কার্যক্রমটি পরিচালনা করছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ