আজ ১৬ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩০শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

সিরাজগঞ্জ কামারখন্দে মাচায় পদ্ধতিতে আগাম জাতের টমেটো চাষ

সবুজ এইচ সরকার, সিরাজগঞ্জঃ শীতকালীন সবজির মধ্যে টমেটো অন্যতম একটি সবজি। পুষ্টিগুনেও খুব ভরপুর ও স্বুসাদু। যা কাঁচা অবস্থায় খাওয়া যায় এমনকি পাকা অবস্থায় এর নানাধিক চাহিদা রয়েছে বাজারে।

তাই আশপাশের বিভিন্ন উপজেলায় আগাম জাতের টমেটো চাষ করে সফলতা দেখিয়েছেন কৃষকেরা। এবারও কামারখন্দ উপজেলায় বিভিন্ন এলাকায় আগাম জাতের টমেটো চাষ করেছে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় চাষের উপযোগী জমিতে সফল ও নভেলটি প্লাস জাতের টমেটো চাষ করে মাত্র ৪০-৪৫ দিনের মধ্যে ভালো ফলন হওয়ায় খুশি চাষীরা।

এখন পর্যন্ত বাজার দাম ভালো তবে এরকম দাম থাকলে গত বছরে যে লোকসান হয়েছিল তা কাটিয়ে উঠা সম্ভব হবে বলে মনে করেছেন চাষীরা। ইতোমধ্যে বাজারে আগাম জাতের টমেটো বাজারজাত করবে বলে আশাবাদী কামারখন্দের কৃষকেরা।

টমেটো চাষী মোঃ সুলতান, মোঃ আঃ রশিদ মিয়া জানান, গ্রামের অধিকাংশ কৃষক ধান চাষের পাশাপাশি উপযোগী জমিতে মাচায় পদ্ধতিতে আগাম জাতের সফল ও নভেলটি প্লাস টমেটো চাষ করেছেন। আমরাও প্রতি বছরই টমেটো চাষ করে থাকি। মাচায় টমেটো চাষ করলে টমেটোতে কোন কালো দাগ ও পচন ধরে না ফলে টমেটো দেখতেও সুন্দর হয় ক্রেতারা নিতেও আগ্রহী হয়। তবে আবহাওয়া ভালো থাকলে আমরা কিছুদিনের মধ্যে টমেটো বিক্রি করতে পারব।

তবে টমেটো চাষ অধিক ঝুঁকিপূর্ণ এবং সময়মতো পরিচর্যা সার কীটনাশক প্রয়োগ করতে না পারলে ভাল ফলন পাওয়া যায় না। তাই শীতের বৈরী আবহাওয়ায় ক্ষতির আশংকাও করছেন অনেকে আবার। তাই কুয়াশা প্রতিরোধক স্প্রে ছিটাচ্ছেন কেউ কেউ।

কামারখন্দ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আনোয়ার সাদাত বলেন, শেখ হাসিনার নির্দেশ এক ইন্সি কৃষকের জমিও যেন পতিত না থাকে। আমরা টমেটো চাষের জন্য কৃষকদের পরামর্শ দেয় যেন অল্প সময়ের মধ্যে কৃষক লাভবান হয়। এবং উপজেলা কৃষি অফিস কর্তৃক প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে বীজ- সার বিতরণ করে কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ