আজ ১৬ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩০শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

শিবগঞ্জে প্রান্তিক কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে প্রণোদনা বীজ ও সার বিতরণ

শিবগঞ্জ (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধিঁ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলায় ২০২১-২২ অর্থ বছরের রবি মৌসুমে কৃষি প্রনোদনার আওতায় ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের সহায়তার জন্য গম, ভূট্টা, সরিষা, চিনাবাদাম, শীতকালিন পেঁয়াজ, মসুর, মুগ ও খেসারী ফসলের উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিনামূল্যে বীজ ও রাসায়নিক সার বিতরণের “শুভ উদ্বোধন” করেন।
৯ নভেম্বর (মঙ্গলবার) বেলা ১১টায় উপজেলা কৃষক/কৃষানী ট্রেনিং সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয়ে বিনামূল্যে বীজ ও রাসায়নিক সার বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধনী উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর।
উপজেলা কৃষি অফিসার শরিফুল ইসলামের স্বাগত বক্তব্যে শুরু হয়ে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহি অফিসার সাকিব-আল-রাব্বি,
প্রধান অতিথি মাননীয় সংসদ ডাঃ সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল এমপি,
বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম, উপজেলা ভাইস  চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শিউলি বেগমসহ আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ ও কৃষক কৃষাণী।
এ সময় প্রধান অতিথি বলেন, ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকরা যাতে রবি ফসল উৎপাদন করতে পারে সে জন্য বিনামূল্যে বীজ ও সার প্রদান করছে সরকার। বর্তমান সরকার বিনামূল্যে সার ও বিভিন্ন ফসলের বীজ বিতরণ অব্যাহত রেখেছেন। আওয়ামী লীগ সরকার কৃষি ও কৃষক বান্ধব। আওয়ামী লীগ সরকার সব সময় কৃষকের পাশে রয়েছে। প্রতি বছর উপজেলার হাজার হাজার ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে শষ্যের বীজ প্রদান করে চলেছে। কৃষকদের উৎপাদিত ফসলের ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত করেছে আওয়ামী লীগ সরকার।
২০২১-২২ অর্থবছরে রবি মৌসুমে উপজেলায় ৯ হাজার ৯০ জন ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে বীজ ও রাসায়নিক সার বিতরণ করা হয়েছে।
চলতি মৌসুমে উপজেলার ৩৫০০ জন কৃষকের মাঝে প্রতি বিঘার জন্য ২০ কেজি গম, ১০ কেজি ডিএপি এবং ১০ কেজি এমওপি, ১ হাজার ৫০০ জন কৃষকের মাঝে ২ কেজি ভুট্টা বীজ এবং ২০ কেজি ডিএপি ও ১০ কেজি এমওপি, ২ হাজার জন কৃষকের মাঝে বিঘা প্রতি ১ কেজি সরিষা এবং ১০ কেজি ডিএপি ও ১০ কেজি এমওপি, ১৭০ জন চিনাবাদাম চাষীর মাঝে প্রতি বিঘায় ১ কেজি বীজ এবং ১০ কেজি ডিএপি ও ১০ কেজি এমওপি, ৩০০ জন মসুর চাষীর জন্য ৫ কেজি করে বীজ এবং ১০ কেজি ডিএপি ও ৫ কেজি এমওপি, ১৩০০ জন খেসারী চাষীর মাঝে বিঘা প্রতি ৮ কেজি বীজ এবং ১০ কেজি ডিএপি ও ৫ কেজি এমওপি, ১৭০ জন কৃষকের মাঝে বিঘা প্রতি শীতকালীন পেঁয়াজ বীজ ১ কেজি এবং ১০ কেজি ডিএপি ও ১০ কেজি এমওপি সার প্রদান করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ