আজ ২৯শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১২ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ষড়যন্ত্র কিংবা অন্য কোনভাবে ক্ষমতায় আসার স্বপ্ন-হানিফ-দৈনিক বাংলার নিউজ

নিরেন দাস,জয়পুুরহাট প্রতিনিধিঃ-

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ বিএনপি’র কঠোর সমালোচনা করে বলেছেন, ‘রাজনীতি করেন গণতান্ত্রিক পন্থা অনুসরণ করেন। শ্রীলঙ্কার অবস্থা দেখে বাংলাদেশে দিবা স্বপ্ন দেখে লাভ নেই। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিয়ে যদি জনগনের রায় পান তাহলে ক্ষমতায় আসার স্বপ্ন দেখেন, আর তা না হলে ষড়যন্ত্র কিংবা অন্য কোনভাবে ক্ষমতায় আসার স্বপ্ন আপনাদের জন্য দুঃস্বপ্ন হয়ে থাকবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বে সারাবিশ্বে বাংলাদেশ যখন উন্নয়নের রোল মডেলের স্বীকৃতি লাভ করেছে। তারা (বিএনপি-জামায়াত) দেশের উন্নয়ন চায়না। কারণ তাদের প্রভু পাকিস্তান উন্নয়নে ব্যার্থ হয়েছে। যে পাকিন্তান এক সময়ে আমাদের শোষণ করেছিল সে পাকিস্তানের রিজার্ভ এখন ৪৮ বিলিয়ন ডলারের নিচে আর আমাদের রিজার্ভ এখন ৫০ বিলিয়ন ছাড়িয়েছে।’ এ অপশক্তির বিরুদ্ধে সজাগ ও সতর্ক থাকার আহবান জানান হানিফ

বুধবার (১১ মে) দুপুরে লক্ষ্মীপুর জেলা শহরের এন আহমদীয়া স্কুল মাঠে পৌর ও সদর থানা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

সম্মেলনে পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক,জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল স্বপন-এমপি, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, ত্রাণ ও সমাজ কল্যান বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী। আরো উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন এমপি, সহ সভাপতি সফিকুল ইসলাম পিন্টু, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা এম এ মোমিন পাটোয়ারী, পৌর মেয়র মোজাম্মেল হায়দার মাসুম ভূইয়া. সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ কে এম সালাহ উদ্দিন টিপু, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক হুমায়ুন কবির পাটোয়ারী প্রমুখ।

এর আগে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন এবং পায়রা উড়িয়ে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন অতিথিরা। প্রসঙ্গত : ২০০৩ সালে লক্ষ্মীপুর পৌর ও সদর থানা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠানের পর দীর্ঘ ১৯ বছর পর সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় এ দিন। সম্মেলনে সদর থানায় সভাপতি পদে ৫ জন, সাধারণ সম্পাদক পদে ৯ জন। পৌরসভায় সভাপতি পদে ৭ জন, সাধারণ সম্পাদক পদে ৯ জন প্রার্থী হন।

এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com